আজকে

  • ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ২৬শে মে, ২০১৮ ইং
  • ১০ই রমযান, ১৪৩৯ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

সহিংসতা হলেও ফলাফলে প্রভাব পড়েনি: ইডব্লিউজি

Pub: বুধবার, মে ১৬, ২০১৮ ৬:০৩ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, মে ১৬, ২০১৮ ৬:০৩ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

সদ্য সমাপ্ত খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৩২ শতাংশ কেন্দ্রে নির্বাচনী সহিংসতার প্রমাণ পাওয়া গেলেও তা নির্বাচনের ফলাফলে কোনও প্রভাব ফেলেনি বলে জানিয়েছে নির্বাচন পর্যবেক্ষক দল ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপ (ইডব্লিউজি)।

বুধবার (১৬ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচনের পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদন তুলে ধরেন ইডব্লিউজি’র পরিচালক ড. আব্দুল আলীম।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ শুরু হলেও সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ইডব্লিউজি’র পর্যবেক্ষকগণ পর্যবেক্ষণকৃত ১৪৫টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৩২ শতাংশ ভোট কেন্দ্রে নির্বাচনী সহিংসতা পর্যবেক্ষণ করে। যার মধ্যে রয়েছে অবৈধভাবে ব্যালট পেপারে সিল মারা, ভোট কেন্দ্রের ভেতরে এবং বাইরে সংগঠিত সামান্য সহিংসতা, ভোট কেন্দ্রে অনুমোদিত ব্যাক্তির উপস্থিতি এবং ভোটারকে ভোট প্রদানে বাধা দান। যেকয়টি অনিয়ম দেখা গেছে তার মধ্যে রয়েছে ভোট কেন্দ্রের বাইরে সহিংসতা ১২টি, ভেতরে সহিংসতা চারটি, ভোটারকে ভোট প্রদানে বাধা দান ১৮টি, পর্যবেক্ষককে ভোট কেন্দ্রে প্রেবেশ করতে না দেওয়ার ঘটনা চারটি, ভোট কেন্দ্রের ৪০০ গজের মধ্যে নির্বাচনী প্রচারণার ঘটনা ১০টি, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ প্রার্থীর পক্ষে অবস্থানের ঘটনা চারটি।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ভোটগ্রহণ শুরুর সময় ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের লম্বা লাইন দেখা গেছে। এর মধ্যে ৩৭ শতাংশ কেন্দ্রের লাইনে ১-২০ জন ভোটার লাইনে দাঁড়িয়ে ছিল। ২৭ শতাংশ কেন্দ্রে ২১-৪০ জন ভোটার এবং ৩৪ শতাংশ কেন্দ্রে ৪০জনের বেশি ভোটার লাইনে দাঁড়িয়ে ছিল। ভোট গ্রহণ শুরুর সময় ৯৯ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট এবং ৮৮ শতাংশ ৮ শতাংশ কেন্দ্রে বিএনপি মেয়র প্রার্থীর এজেন্টদের উপস্থিতি দেখা গেছে। ইডব্লিউজি’র পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী ভোট প্রদানের হার ৬৪ দশমিত ৮ শতাংশ।

নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হয়েছে দাবি করে আব্দুল আলীম বলেন, ‘যে কয়টি ঘটনা ঘটেছে তা বিচ্ছিন্ন ঘটনা। ঘটনার মাত্রা বড় আকারে ছিল না, ছোট ছোট ঘটনাগুলো নির্বাচনের ফলাফলে কোনও পরিবর্তন ফেলতে পারেনি। তবে রংপুরের নির্বাচন ছিল এযাবত কালের সেরা নির্বাচন। তার থেকে খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনেক পিছিয়ে আছে। এর কারণ হলো রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সবার একটি বড় সমর্থন ইলেকশন কমিশন পেয়েছিল।’

ইডব্লিউজি’র সদস্য এবং রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বলেন, ‘খুলনার নির্বাচন জনগণের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে। নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হয়েছে। জাল ভোটের ক্ষেত্রে ইসি’র জিরো টলারেন্স নীতি ছিল বলেই তিনটি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।’

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1050 বার

 
 
 
 
মে ২০১৮
রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
« এপ্রিল    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
 
 
 
 
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com