fbpx
 

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন গ্রেফতার

Pub: সোমবার, অক্টোবর ২২, ২০১৮ ১০:২৯ অপরাহ্ণ   |   Upd: মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৮ ৬:৩৩ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

টেলিভিশনের টকশোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলা ও নারী বিদ্বেষী বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার (২২ অক্টোবর) রাত পৌনে ১০টার দিকে রাজধানীর উত্তরায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি)’র সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বাসা থেকে বের হওয়ার সময় তাকে গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অতিরিক্ত কমিশনার আবদুল বাতেন গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রংপুরের একটি মামলায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে।

এর আগে সোমবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে রংপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্টেট আদালতে মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করেন নগরীর মুলাটোল এলাকার মিলি মায়া বেগম নামে এক নারী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নারী বিদ্বেষী বক্তব্য দিয়ে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে ৫০০/৫০৬ ও ৫০৯ ধারায় মামলাটি করা হয়। বাদীর পক্ষে আইনজীবী আইনুল হোসেন আদালতে মামলাটি দাখিল করেন।

উল্লেখ্য, গত ১৬ অক্টোবর একাত্তর টেলিভিশনের টক শো ‘একাত্তরের জার্নাল’ এ ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি প্রশ্ন করেন, ‘আপনি বলছেন- জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে আপনি নাগরিক হিসেবে উপস্থিত থাকেন। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই বলছেন, আপনি জামায়াতের প্রতিনিধি হয়ে সেখানে উপস্থিত থাকেন।’

মাসুদা ভাট্টির এই প্রশ্নে রেগে গিয়ে মইনুল হোসেন বলেন, ‘আপনার দুঃসাহসের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনি চরিত্রহীন বলে আমি মনে করতে চাই। আমার সঙ্গে জামায়াতের কানেকশনের কোনও প্রশ্নই নেই। আপনি যে প্রশ্ন করেছেন তা আমার জন্য অত্যন্ত বিব্রতকর।’

এ ঘটনায় নারী বিদ্বেষী বক্তব্যের অভিযোগ এনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় মইনুল হোসেনের নামে মানহানি মামলা দায়ের করা হয়। এরইমধ্যে একাধিক মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন তিনি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ