fbpx
 

ভূমধ্যসাগরে ১৪ বাংলাদেশিসহ ২৯০ জন উদ্ধার

Pub: শনিবার, মে ২৫, ২০১৯ ৮:২২ পূর্বাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, মে ২৫, ২০১৯ ৮:২২ পূর্বাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ভূমধ্যসাগরের লিবিয়া উপকূল থেকে ১৪ বাংলাদেশিসহ ২৯০ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে দেশটির নৌবাহিনী। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট’ এ খবর জানিয়েছে। লিবিয়ার নৌবাহিনীর বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, ইউরোপগামী তিনটি নৌকা থেকে এই অভিবাসীদের উদ্ধার করা হয়েছে।

সংবাদমাধ্যমটি আরও জানায়, শুক্রবার (২৪ মে) লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির পূর্ব উপকূলে দুটি পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করা হয়।

খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার লিবিয়ার নৌবাহিনীকে সাগরে তিনটি নৌকা অকেজো হয়ে পড়ার খবর জানায় জার্মানির একটি দাতব্য সংস্থা। ওই দিনই লিবিয়ার কোস্ট গার্ড একটি রাবারের নৌকা ডুবে যাওয়ার খবর পায়। নৌকায় থাকা যাত্রীরা সাগরে ভেসে ভেড়াচ্ছিলেন। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে বেশির ভাগই আরব ও আফ্রিকার দেশগুলোর নাগরিক।

ভাগ্য ফেরাতে ইতালির উদ্দেশে যাত্রা করা অভিবাসীরা মূলত লিবিয়ার পশ্চিম উপকূল দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে থাকেন।

নৌবাহিনীর মুখপাত্র আয়ুব কাসেম বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ত্রিপোলি থেকে ৫০ কিলোমিটার পূর্বের শহর কারাবুলি উপকূলে অভিযান চালিয়ে রাবারের নৌকা থেকে ৮৭ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়। ত্রিপোলি থেকে ১৬০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত জ্লিতিন শহরের উপকূল থেকে আরেক অভিযানে দুটি রাবারের নৌকা থেকে ২০৩ জন অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে ৭ জন নারী ও এক শিশুর উপস্থিতি নিশ্চিত করেছে রয়টার্স।

আয়ুব কাসেম বলেন, ‘অবৈধ অভিবাসীরা জরাজীর্ণ ও ভাঙাচোরা নৌকায় ভাসমান ছিলেন। খবর পেয়ে কোস্টগার্ডের সদস্যরা তাদের দুটি পৃথক নৌকা থেকে উদ্ধার করে।’ পরে তাদের অবৈধ অভিবাসন বিরোধী বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

সম্প্রতি ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার পথে নৌকাডুবিতে প্রাণ হারান ৩৭ বাংলাদেশি নাগরিক। এরপর ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেওয়ার বিষয়টি নতুন করে সবার সামনে আসে। নিহতদের সঙ্গে থাকা ১৫ জন বাংলাদেশি নৌকাডুবি থেকে বেঁচে যান। ২১ মে তিউনিশিয়া থেকে দেশে ফেরেন তারা।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ