fbpx
 

শেষ যাত্রায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এরশাদ

Pub: Monday, July 15, 2019 1:30 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেষ যাত্রায় রাজধানীর কাকরাইলস্থ জাতীয় পার্টির (জাপা) কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পৌঁছেছে দলটির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মরদেহ।

সোমবার (১৫ জুলাই) জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত এরশাদের দ্বিতীয় জানাযা শেষে কাকরাইলস্থ জাপার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মরদেহ নিয়ে আসা হয়।

এ সময় এরশাদের মরদেহ গ্রহণ করেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এরশাদের ছোট ভাই জিএম কাদের এবং মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।

এরশাদকে শেষ বারের মতো শ্রদ্ধা জানাতে সকাল থেকেই ঢাকা মহানগর ও সারাদেশ থেকে জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীরা জাপার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত হয়। পরে নেতা-কর্মীরা দলের প্রতিষ্ঠাতাকে শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানায়।

কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ৪ ঘণ্টার মতো এরশাদের মরদেহ রাখা হবে। বিকেলে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে তৃতীয় জানাযার জন্য এরশাদের মরদেহ নেয়া হবে। 

এরশাদের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানানোর অংশ হিসেবে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় শোক বই খোলা হয়েছে। আগামী ১৮ জুলাই পর্যন্ত এ শোক বই খোলা থাকবে। 

এর আগে, সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় নামাজে জানাযা জাতীয় সংসদে অনুষ্ঠিত হয়।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং সংসদ সদস্যরাসহ অনেকেই জানাযায় অংশ নেন। জানাযা শেষে রাষ্ট্রপতিসহ অন্যরা ফুল দিয়ে মরহুমের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

এদিকে এরশাদের উপ-প্রেস সচিব খন্দকার দেলোয়ার জালালী জানিয়েছেন, মোট দুই রাত সিএমএইচের হিমঘরে এরশাদের মরদেহ রাখা হবে।

১৬ জুলাই সকাল ১০টায় হেলিকপ্টার যোগে মরদেহ রংপুরে নেয়া হবে। রংপুর জেলা স্কুল মাঠে অথবা ঈদগাহ মাঠে বাদ জোহর এরশাদের চতুর্থ জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন বিকেলে ঢাকায় বনানী সামরিক কবরস্থানে এরশাদকে দাফন করা হবে।

আগামী বুধবার (১৭ জুলাই) গুলশান আজাদ মসজিদে এরশাদের কুলখানি হবে।

প্রসঙ্গত, রবিবার (১৪ জুলাই) সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

এর আগে তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ২৬ জুন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। তিনি ফুসফুসে সংক্রমণসহ বয়সজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ