fbpx
 

মাদরাসায় জঙ্গি-সন্ত্রাসদের শিক্ষা দেয়া হয় না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Pub: Thursday, October 3, 2019 9:19 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ‘জঙ্গি সন্ত্রাসের উত্থান কিন্ত সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে হয়েছিল। কোন মাদরাসায় বা কোন জায়গায় এই জঙ্গি-সন্ত্রাসের বীজ বোপন করতে পারেনি, পেরেছে শুধু এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। মাদরাসায় আলেমদের শিক্ষা দেওয়া হয়। সেখানে কোনও জঙ্গি সন্ত্রাসদের শিক্ষা দেয়া হয় না। আমি সব সময় বলে আসছি, জোর গলায় বলে আসছি। এটা আমি মানি, আর বিশ্বাস করি বলেই আজ আমরা জঙ্গি সন্ত্রাস দমন করতে পেরেছি।’

বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) ঢাকার দোহার উপজেলার সরকারি পদ্মা কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও একাডেমিক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা দেখলাম সোশ্যাল মিডিয়ার একটি অ্যাপসের মাধ্যমে আত্মহত্যার জন্য উদ্ভুদ্ধ করছে। ভূত-পেত্নী হয়ে না কি সবার সাথে আলাপ আলোচনা করে। তাই সোশ্যাল মিডিয়ার ভাল দিকটা আমাদের গ্রহণ করতে হবে ও সাবধানে পদক্ষেপ নিতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স ঘোষণা করেছেন। মাদক আমরা তৈরি করি না। পাশ্ববর্তী দেশের ইয়াবায় আমাদের দেশ সয়লাভ হয়ে গিয়েছে। আমাদের মেধা পথ হারিয়ে ফেলেছে। তাই আইনশৃঙ্খল বাহিনী মাদক নির্মূলে কাজ করে যাচ্ছে। যারা মাদকের সাথে জড়িত তারা এ পথ থেকে ফিরে আস। মাদকের কুফল ছাড়া সুফল কিছুই নেই। এর শেষ গন্তব্যস্থল হলো পৃথিবী থেকে বিদায়। যারা মাদকের সাথে জড়িত তাদেরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দিতে হবে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা কি চাই, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কি চান? আমরা চাই একটা সুন্দর বাংলাদেশ। সেই বাংলাদেশ যার জন্য আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছি, যে বাংলাদেশ আমরা হ্নদয়ে ধারণ করেছি। যে বাংলাদেশের জন্য আমাদের ৩০ লক্ষ লোক শাহাদাৎ বরণ করেছে। আমরা সেই বাংলাদেশ দেখতে চাই। ভবিষ্য প্রজন্মের জন্য আমরা সম্ভবনাময়ী বাংলাদেশ দিয়ে যেতে চাই। তাই শিক্ষার উন্নয়নে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’

দোহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা আক্তার রিবা’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দোহার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান খোকন শিকদার প্রমূখ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ