fbpx
 

কাল-পরশু মধ্যে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি!

Pub: Tuesday, April 23, 2019 9:13 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নানা জল্পনা-কল্পনা ও বির্তকের অবসান ঘটিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি চূড়ান্ত করতে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। এ-সংক্রান্ত সব প্রস্তুতি প্রায় শেষ দিকে বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। সংগঠনটির সাবেক নেতাদের মধ্যে চলমান ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়েই এ কমিটি চূড়ান্ত করা হচ্ছে বলে ব্রেকিংনিউজকে নিশ্চিত করেছেন ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান পদপ্রত্যাশী একাধিক নেতা।

সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে সাবেক কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে সমন্বয় করার নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দীর্ঘদিন ধরে সাবেক নেতাদের সাথে সমন্বয় না হওয়ায় ছাত্রলীগেরে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে বিলম্ব হয়। ছাত্রলীগের সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড ও পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) গত ১৮ এপ্রিল ৭ দিনের মধ্যে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের তাগিদ দেন।

ছাত্রলীগের কমিটি গঠনে আওয়ামী লীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের ৪ নেতা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক ও আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম এবং ছাত্রলীগের বিদায়ী কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনের সঙ্গে কয়েক দফা বৈঠক করার পর এ সমঝোতা ও সমন্বয় হয়।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘সকলের সঙ্গে পরামর্শ করেই আমরা কমিটি প্রস্তুত করেছি। তারপরও বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।’

এদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ব্রুনাই সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। এখন তিনি সময় দিলেই ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে ব্রেকিংনিউজকে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান। তিনি বলেন, ‘পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শেষের দিকে। আশা করি প্রধানমন্ত্রী এখন সময় দিলেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা যাবে।’

এরআগে, ২০১৮ সালের ১১ ও ১২ মে ছাত্রলীগ ২৯তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় অধিবেশনের পর কমিটি ঘোষণার নিয়ম থাকলেও শীর্ষ দুই পদে নেতৃত্ব নির্বাচনে সময় নেন সাংগঠনিক নেত্রী আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্মেলনের আড়াই মাস পর (৩১ জুলাই) সভাপতির পদে রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক পদে গোলাম রাব্বানীর নাম ঘোষণা করা হয়।

ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কেন্দ্রীয় কমিটি ৩০১ সদস্যবিশিষ্ট হওয়ার কথা। একই সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ শাখার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। গঠনতন্ত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কমিটি ১০১ সদস্যবিশিষ্ট হওয়ার কথা।

রীতি অনুযায়ী সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণার পর দ্রুততম সময়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার কথা। কিন্তু দুই সদস্যের এ কমিটির মেয়াদ ১০ মাস পার হতে চললেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে কোনও উদ্যোগই নিতে পারেননি শোভন-রাব্বানী।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ