সাবেক এমপি সিরাজকে আহ্বায়ক করে বগুড়া বিএনপির কমিটি ঘোষণা

Pub: বুধবার, মে ১৫, ২০১৯ ৬:৩২ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, মে ১৫, ২০১৯ ৬:৩২ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা হয়েছে। সাবেক এমপি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজকে আহ্বায়ক ও অ্যাডভোকেটস বার সমিতির সেক্রেটারি সাইফুল ইসলাম এবং সাবেক সহ-সভাপতি ফজলুল বারী তালুকদার বেলালকে যুগ্ম-আহ্বায়ক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি প্রকাশ করা হয়েছে।

এ কমিটি নিয়ে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মাঝে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলছে। তবে কেউ এ ব্যাপারে প্রকাশ্য কোনো মন্তব্য করতে রাজি হচ্ছেন না।

মঙ্গলবার রাতে কমিটি ঘোষণা হলেও বুধবার বিকাল পর্যন্ত এ সংক্রান্ত কোনো চিঠি আসেনি।

নতুন আহ্বায়ক ফোন ধরছেন না। আর যুগ্ম আহ্বায়করা বলেন, তারা শুনেছেন কমিটি ঘোষণা হয়েছে।

জানা গেছে, নতুন এ আহ্বায়ক কমিটিতে সদ্য সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু গ্রুপের পাল্টাপাল্টি ঘোষিত আহবায়ক কমিটির আহ্বায়কদের কাউকে রাখা হয়নি। তবে লালু গ্রুপের যুগ্ম আহবায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল যুগ্ম আহ্বায়ক হয়েছেন।

জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন জানান, তিনি মুখে মুখে নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণার কথা শুনেছেন। তবে এ সংক্রান্ত কোনো চিঠি হাতে পাননি।

বুধবার সকালে নতুন আহ্বায়ক কমিটির কথা প্রচার হলে বগুড়ায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক আলোচনা এবং সমালোচনা শুরু হয়। আহ্বায়ক ও যুগ্ম আহ্বায়কদের নাম শোনার পর অনেকেই অবাক হয়েছেন। আবার তাদের সমর্থকরা খুশি হয়েছেন।

অনেকে বলেছেন, বগুড়ায় বিএনপির রাজনীতিতে যাদের অবদান কম তাদের দিয়েই আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

বগুড়া জেলা বিএনপির নতুন কমিটির আহ্বায়ক বগুড়া-৫ (শেরপুর-ধুনট) আসনের সাবেক এমপি সংস্কারপন্থী খ্যাত গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ ফোন ধরেননি।

যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম ও ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল বলেছেন, তারা কমিটি ঘোষণার কথা শুনলেও বুধবার বিকাল পর্যন্ত কোনো চিঠি পাননি। তবে রাতেই এ সংক্রান্ত চিঠি পাবেন বলে আশা করছেন।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ২২ জানুয়ারি গঠিত বগুড়া জেলা বিএনপির কমিটি অনেক আগেই মেয়াদোত্তীর্ণ হয়। এর কর্তৃত্ব ও নেতৃত্ব নিয়ে অনেকদিন গ্রুপিংয়ের গুঞ্জন শোনা গেলেও তা প্রকাশ্য রূপ নেয়। একদিকে জেলা বিএনপির সদ্য সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও অন্যদিকে সাবেক এমপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু।

যারা নির্বাচনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হবেন না এমন মুরুব্বি নেতাদের মাধ্যমে ১০ দিনের মধ্যে আহ্বায়ক কমিটির তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ থাকলেও সাইফুল গ্রুপ গত ২৯ এপ্রিল দুপুরে শহরের নবাববাড়ি সড়কে দলীয় কার্যালয়ে নির্বাহী কমিটির সাধারণ সভা ডেকে সদ্য সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলামকে আহ্বায়ক ও সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁনকে সদস্য সচিব করে ৪৫ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা দেয়।

লালু গ্রুপ ওই সভা বয়কট করে। তারা উপরের নির্দেশ মেনে ওইদিন সন্ধ্যায় শহরের সুত্রাপুরে তারেক রহমানের বাসভবনে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমানকে আহ্বায়ক ও সাবেক সহ-সভাপতি ফজলুল বারী তালুকদার বেলালসহ ৪ জনকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ৩১ সদস্যের পাল্টা আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা দেয়।

দুই গ্রুপের নেতৃবৃন্দ নিজেদের কমিটিকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের নির্দেশিত ও অপর কমিটিকে এখতিয়ার বিহীন অবৈধ বলে দাবি করেন। এ ঘটনায় বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং সমর্থকরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েন।

এর আগে কেন্দ্রীয় বিএনপি কার্যালয়ে বিশৃংখলা করায় সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব সাইফুল ইসলাম গ্রুপের জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক পরিমল চন্দ্র দাস ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শাহ মেহেদী হাসান হিমুকে দলের সব পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এর প্রতিবাদে নেতাকর্মীরা জেলা বিএনপি কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেন। এর নেপথ্যে সাবেক এমপি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের ইন্ধন থাকার অভিযোগে তার কুশপুত্তলিকা দাহ এবং তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছিল।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ