fbpx
 

ঈদে নির্ষিঘ্নে নিরাপদে বাড়ি ফিরা নিশ্চিত করুন : ন্যাপ

Pub: বুধবার, মে ২২, ২০১৯ ৪:৫৬ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, মে ২২, ২০১৯ ৪:৫৬ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আসন্ন ঈদ-উল-ফিতরে জনগনের ঈদযাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করতে সড়ক ও মহাসড়ক থেকে ফিটনেসবিহীন যানবাহন, নসিমন-করিমন, ইজিবাইক, অটোরিকশা, ব্যাটারি ও প্যাডেলচালিত রিকশার পাশাপাশি মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ, মলমপার্টি-অজ্ঞান পার্টির দ্যেরাত্ম বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

বুধবার গণমাধ্যামে পাঠানো এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় এই দাবি জানান।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, প্রতিবছর ঈদ আনন্দ যাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় বহুলোকের প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতি হয়ে থাকে। ফলে অনেকের ঘড়েই ঈদের খুশি হারিয়ে যায়। ঈদের আনন্দ যেন সকল মানুষ সবার সাথে সাথে ভাগ করতে পারে এখান থেকে সরকারের উচিত সেই ব্যবস্থা গ্রহন করা। উত্তোরণ ঘটিয়ে সড়ককে নিরাপদ করার জন্য দীর্ঘগতি ও দ্রুতগতির যানবাহনের জন্য আলাদা লেন চালু করতে সরকারের দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করা উচিত।

নেতৃদ্বয় আরো বলেন, ঈদের এই সময় সড়কে ছিনতাই, রাহাজানি, অজ্ঞান পার্টি, মলম পার্টির দৌরাত্রে কারণে সাধারন যাত্রীরা নি:শ্ব হয়ে যায় পায় ও এক শ্রেনীর দুর্নীতিবাজ পুলিশেরও চাদাবজি বৃদ্ধি পায়। যার ফলশ্রুতিতে সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয় ও দেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর উপর জনগনের আস্থাও হ্রাস পায়। এই সকল বিষয়ে সরকারকে এখনই দ্রুত কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহন করা উচিত।

এবারের পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের লম্বা ছুটিতে সরকার পরিকল্পিতভাবে পদক্ষেপ গ্রহন করলে ভোগান্তি ও দুর্ঘটনামুক্ত নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন যাত্রা নিশ্চিত করা সক্ষম হবে বলে মন্তব্য করে ন্যাপ নেতৃদ্বয় সরকারকে কিছু ব্যবস্থা দ্রুত গ্রহনের দাবী জানান। ব্যাবস্থাগুলো হলো : সড়ক-মহাসড়ক থেকে ফিটনেসবিহীন যানবাহন, নসিমন-করিমন, ইজিবাইক, অটোরিকশা, ব্যাটারি ও প্যাডেলচালিত রিকশার পাশাপাশি মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ, মোটরসাইকেলে ঈদযাত্রা নিষিদ্ধ করা, সকল গার্মেন্টস ও অন্যান্য শিল্প কলকারখানার ছুটি একষাথে না করে ভিন্ন ভিন্নভাবে করা, টোল প্লাজায় সবকটি বুথ চালু রাখা ও দ্রুত গাড়ি ব্রিজ পারের ব্যবস্থা করা, মহাসড়কের পাশে অস্থায়ী হাটবাজার নিয়ন্ত্রন করা, দুর্ঘটনা প্রতিরোধে স্পিডগান ব্যবহার ও উল্টোপথের গাড়ি চলাচল বন্ধ, সড়ক-মহাসড়কে অবৈধ দখল ও পার্কিংমুক্ত রাখা, ঈদের আগে ও পরে সড়কে যানবাহন থামিয়ে চাঁদাবাজি বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন করা, লাইসেন্সবিহীন ও অদক্ষ চালকদের নিষিদ্ধ ও নিয়ন্ত্র করা, ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক দ্রুত মেরামতের ব্যবস্থা করা, ফেরিঘাট, লঞ্চঘাট, নগরীর প্রবেশমুখ ও সড়কের গুরুত্বপূর্ণ ইন্টারসেকশন সমূহে দ্রুত গাড়ি পাসিংয়ের ব্যবস্থা করা, দুর্ঘটনা কবলিত যানবাহন দ্রুত উদ্ধার আহতদের চিকিৎসা ব্যবস্থা করা, সড়কে নিয়োজিত সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানসমূহের ঈদের ছুটি বাতিল করা।

নেতৃদ্বয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ঈদে জনগনের নির্ষিঘ্নে নিরাপদে বাড়ি ফিরা নিশ্চিত করতে দ্রুত কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সরকারের দায়িত্বশীল মন্ত্রী, মন্ত্রনালয় ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের একন প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদানের জোর দাবী জানিয়ে বলেন, প্রতি ঈদের ন্যায় এবার যেন সড়কে মৃত্যুর মিছিল না হয় এটা সরকারকেই নিশ্চিত করতে হবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ