হাইকমান্ডের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতারা

Pub: বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০১৯ ২:২৫ পূর্বাহ্ণ   |   Upd: বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০১৯ ২:২৫ পূর্বাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সাবেক ছাত্রনেতাদের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে আন্দোলন কর্মসূচি সাময়িকভাবে স্থগিত করলেও দাবি পূরণে তাদের কাছ থেকে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত পাননি ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির নেতারা। তারা এখন হাইকমান্ডের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছেন।

জানা গেছে, সাবেক ছাত্রনেতারা (সার্চ কমিটির সদস্যরা) লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাথে যোগাযোগ করতে না পারায় তাদেরকে কোনো সিদ্ধান্ত জানাতে পারছেন না। তবে সিদ্ধান্ত পজিটিভ কিংবা নেগেটিভ যেটাই হোক, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় স্বাভাবিকভাবেই দলীয় কার্যালয়ে যাবেন ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।
তারপর পরিস্থিতি বিবেচনায় সেখানে বসেই পরবর্তী করণীয় ঠিক করবেন তারা। সেই পর্যন্ত আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিত থাকছে। বুধবার রাতে বৈঠক করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতারা।

বয়সের সীমা না রাখা, স্বল্পমেয়াদী কমিটি গঠন এবং কেন্দ্রীয়, বিশ্ববিদ্যালয়, মহানগর ও কলেজের সমন্বয়ে কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা-এই তিন দফা প্রস্তাবনার ভিত্তিতে ছাত্রদলের নতুন কমিটি গঠনের দাবিতে গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দিনব্যাপী বিক্ষোভ করেন সংগঠনের বিলুপ্ত কমিটির নেতারা।

বিক্ষোভের একপর্যায়ে কার্যালয়ের বিদ্যুতের লাইন কেটে দেওয়া হয়। কর্মসূচি চলাকালে সার্চ কমিটির সদস্যরা ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীদের শান্ত করতে গিয়ে তাদের ক্ষোভের মুখে পড়েন, এমনকি তাদের কাউকে কাউকে অপদস্থও হতে হয়। পরে রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাবেক ছাত্রনেতাদের সাথে বৈঠকে দাবি পূরণে আশ্বাসের প্রেক্ষিতে সাময়িক সময়ের জন্য আন্দোলন স্থগিত করেন আন্দোলনরতরা।

ছাত্রদলের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি ইখতিয়ার রহমান কবির বুধবার রাতে বলেন, দাবি পূরণে সাবেক ছাত্রনেতাদের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার আমরা আমাদের কর্মসূচি সাময়িকভাবে স্থগিত করেছিলাম। কিন্তু তাদের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত আমাদেরকে কিছু জানানো হয়নি।

আমরা জানতে পেরেছি, সার্চ কমিটির সদস্যরা এ ব্যাপারে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছ থেকে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত জানতে পারেননি। আমরা তাদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছি। আশা করছি, তাদের কাছ থেকে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত পাব।

তিনি আরো বলেন, সিদ্ধান্ত পজিটিভ বা নেগেটিভ যাই হোক, আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) বেলা ১১টায় আমরা স্বীভাবিকভাবে নয়াপল্টনে বিএনপি অফিসে যাব। কোনো কর্মসূচি আপাতত নেই।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ