‘বিএনপি নেতা হাসান মামুনকে ফাঁসানো হয়েছে’

Pub: সোমবার, জুন ১৭, ২০১৯ ৫:১৪ অপরাহ্ণ   |   Upd: সোমবার, জুন ১৭, ২০১৯ ৫:১৪ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের সঙ্গে বিএনপি নেতা হাসান মামুনের নাম জড়িয়ে তাকে ফাঁসানো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গুম, খুন ও হত্যার পরও সরকার সন্তুষ্ট হতে না পেরে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে কলঙ্ক লেপন করে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে গ্রেফতার করছে।

তিনি বলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক সভাপতি হাসান মামুনকে পরশু রাতে র্যা ব বাসা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে অদৃশ্য করে রাখে এবং ২০ ঘণ্টা পর গতকাল পটুয়াখালী সদর থানায় হস্তান্তর করে।

হাসান মামুনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনাটি সম্পূর্ণভাবে নাটকীয় ও ভীতি সৃষ্টির লক্ষ্য নিয়েই সংঘটিত করা হয়েছে বলে মনে করেন বিএনপির এ নেতা।

‘যে অভিযোগ হাসান মামুনের বিরুদ্ধে করা হয়েছে, তা শুধু হাস্যকরই নয়, সম্পূর্ণভাবে বানোয়াট।’

রিজভী বলেন, হাসান মামুনের বিরুদ্ধে অভিযোগে পটুয়াখালীতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের হোতাদের একজন হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এ অভিযোগ চক্রান্তমূলক বলে দাবি করেন তিনি।

বিএনপির এ নেতা বলেন, পটুয়াখালীতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তরপত্র সরবরাহ, প্রশ্নের উত্তরপত্র ফাঁস এবং অর্থনৈতিক লেনদেনের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগ ছিল শিক্ষক, আইনজীবী, জেলা প্রশাসন এবং বিভিন্ন দফতরের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমে তা প্রকাশ হয়েছে।

রিজভী আরও বলেন, প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস চক্রে ছাত্রলীগের নেতাও রয়েছে। তাদের অনেককেই পুলিশ সংশ্লিষ্ট ঘটনায় গ্রেফতারও করেছে।

‘এই অপরাধ চক্রের দুষ্কর্মের সঙ্গে হাসান মামুনের দূরতম কোনো সংশ্লিষ্টতার কথা গণমাধ্যমসহ কোথাও কেউ কিছুই বলেনি। অথচ সুপরিকল্পিতভাবে হাসান মামুনকে ফাঁসাতেই তার নাম জড়ানো হয়েছে।’


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ