খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মাঠে নামছে বিএনপি, সমাবেশ ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি

Pub: শনিবার, জুলাই ১৩, ২০১৯ ১২:২৫ পূর্বাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, জুলাই ১৩, ২০১৯ ৯:৪৬ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কারাবন্দি দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রামে বিভাগীয় মহাসমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। আগামী ২০ জুলাই লালদীঘি মাঠ সংলগ্ন জেলা পরিষদ চত্বর কিংবা কাজীর দেউড়ি মোড়ের এই সমাবেশ ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে বিএনপি।

শুক্রবার (১২ জুলাই) মহানগর বিএনপির নাসিমন ভবন কার্যালয় চত্বরে সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়ে বিশেষ সভা হয়। সভায় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবেদীন ফারুকসহ চট্টগ্রামের জেলাগুলোর নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার জন্য বিএনপি ও অঙ্গদলের থানা, ওয়ার্ড অংঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

সমাবেশে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপির সিনিয়র নেতারা অংশ নেবেন। এছাড়াও বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বেশ কয়েকজন নেতা অংশ নিতে পারেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, সাধারণ মানুষ এটা জানে যে সরকার একটা ভয়ভীতির পরিবেশ সৃষ্টি করে সামনের দিকে চলতে চাচ্ছে। দেশনেত্রীকে মুক্ত করা ছাড়া এই ভয়ভীতির পরিবেশ থেকে বের হওয়া যাবে না, গণতন্ত্র ফিরে পাওয়া যাবে না, বাকস্বাধীনতা পাওয়া যাবে না, আইনের শাসন ফিরে পাওয়া যাবে না।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তারা বলেন, খালেদা জিয়াকে বন্দি রাখা মানে গণতন্ত্রকে বেঁধে রাখা। তিনি মুক্ত থাকলে দেশে ভোট চুরির নির্বাচন হতে পারবে না। তাঁর মুক্তির দাবিতে ২০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য বিভাগীয় সমাবেশে যোগ দিয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন জোরদার করার আহ্বান জানান বিএনপি নেতারা।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির উপ-দফর সম্পাদক মো. ইদ্রিস জানান, চট্টগ্রামে বিভাগীয় সমাবেশ করতে প্রথমে লালদীঘি মাঠ চেয়েছিলাম। কিন্তু সেখানে মাসব্যাপী বৃক্ষমেলা চলায় পরবর্তীতে কাজীর দেউরী মোড় কিংবা লালদীঘির পাড় সংলগ্ন জেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এই দুটি স্থানের যেকোন একটিতে সমাবেশ করার অনুমতি পাওয়ার জন্য দলের পক্ষ থেকে নগর পুলিশের কাছে আবেদন করা হয়েছে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ