fbpx
 

নৈরাজ্যিক পরিস্থিতিতে নিরাপত্তাহীন নারীরা : শ্রমজীবী নারী মৈত্রী

Pub: শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৯ ৭:৪৭ অপরাহ্ণ   |   Upd: শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৯ ৭:৪৭ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শ্রমজীবী নারী মৈত্রীর সভাপতি ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য বহ্নিশিখা জামালী বলেছেন, ক্রমবর্ধমান সামাজিক অনাচার ও নৈরাজ্যিক পরিস্থিতিতে নারীরা সবচেয়ে নিরাপত্তাহীন হয়ে পড়েছে।

সেগুনবাগিচায় সংহতি মিলনায়তনে শুক্রবার শ্রমজীবী নারী মৈত্রীর কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি সভায় তিনি উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। তিনি আরো বলেন, মূল্যবোধের চরম অবক্ষয় ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির কারণে নারীদের জীবন ও সম্ভ্রম ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় থাকার কারণে নারী নিপীড়ক ও ধর্ষকেরা আজ বেপরোয়া। ঘর, কর্মস্থল, মহাসড়ক, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, মাদ্রাসা কোথাও নারী নিরাপদ নয়। নারী নিপীড়ন-ধর্ষণ পৌরুষ প্রদর্শনের নামান্তর হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই পরিস্থিতি দেশের জনগণের জন্য অপমান ও লজ্জার।

তিনি বলেন, নারী একদিকে শ্রেণীশোষণ আর অন্যদিকে পুরুষতান্ত্রিক নিপীড়ন এই দ্বৈত নির্যাতনের শিকার। তিনি বলেন, নারী মুক্তি ছাড়া সামাজিক মুক্তি নেই। তিনি এই ভয়ানক পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে নারীর জাগরণ এবং সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রতিরোধ জোরদার করার আহ্বান জানান।

সংগঠনের সভাপতি বহ্নিশিখা জামালীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রাশিদা বেগম, কেন্দ্রীয় নেত্রী স্নিগ্ধা সুলতানা ইভা, মুক্তা ইসলাম, রোকসানা বেগম, নাদিরা বেগম নীরা, রাশিদা আকতার রাশি, লুৎফুন্নাহার নিরু, রাজিয়া সুলতানা, শাহীনূর আক্তার, ইয়াসমিন মুক্তা, মোসাম্মৎ নূরী, চম্পা বেগম, আইভি রহমান মনি, শিমু জামালী প্রমুখ।

সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, মহানগর কমিটির সভাপতি আকবর খান, খেতমজুর ইউনিয়নের সজীব সরকার, বিপ্লবী গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, যুব কনভেনশন প্রস্তুতি কমিটির মোহাম্মদ মামুন, বিপ্লবী ছাত্র সংহতির কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম অভি প্রমুখ। সভায় আগামী ১৩ ডিসেম্বর শ্রমজীবী নারী মৈত্রীর জাতীয় সম্মেলন ঢাকায় অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় ৯ জন নারী সংগঠককে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিতে কো-অপ্ট করা হয়।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ