fbpx
 

শেরে বাংলার হাত ধরেই বাঙালি জাতির উন্মেষ ঘটেছে : ন্যাপ মহাসচিব

Pub: Saturday, October 26, 2019 7:57 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেরে বাংলা এ. কে. ফজলুল হকের হাত ধরেই বাঙালি জাতির উন্মেষ ঘটেছে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, তার সুযোগ্য নেতৃত্ব বাঙালি জাতিকে মাথা উচু করে দাড়াতে শিখিয়েছে।

তিনি বলেন, বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক, মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী এবং তাদের স্নেহধন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভূমিকা ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবে। ব্রিটিশ ভারতে মুসলমানদের প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণের বিরুদ্ধে তিনি আজীবন সংগ্রাম করেছেন।

শনিবার (২৬ অক্টোবর) জাতীয় নেতা শেরে বাংলা এ. কে. ফজলুল হকের মাজারে ১৪৬তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও মাজার জিয়ারত শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শেরে বাংলা লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন করে ইতিহাসে অমর হয়ে আছেন। জমিদারদের হাত থেকে গরীব ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষদের বাঁচানোর জন্য তিনি ঋণ সালিশি বোর্ড গঠন করেন। স্বাধীন বাংলাদেশ কায়েম করার জন্য তিনি অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। তিনি একজন উঁচু মানের আইনজীবী ছিলেন। আইন পেশার আয়ের অধিকাংশই অসহায় সাধারণ মানুষের জন্য ব্যয় করেছেন।

ন্যাপ মহাসচিব বলেন, শেরে বাংলা সত্যিই গরিবের বন্ধু ছিলেন। ছিলেন কৃষকের আত্মার আত্মীয়। যত দিন বাংলাদেশ থাকবে, কৃষি ও কৃষক থাকবে ততদিন উচ্চারিত হবে কৃষকের বন্ধু, মহান নেতা বাংলার বাঘ শেরে বাংলা একে ফজলুল হকের নাম। বাংলার প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে দরিদ্র কৃষকদের ওপর কর ধার্য না করে সারা বাংলায় প্রাথমিক শিক্ষা চালু করা হয়। তিনি বিনা ক্ষতিপূরণে জমিদারি প্রথা উচ্ছেদের পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। কৃষির আধুনিকায়নের জন্য ঢাকা, রাজশাহী এবং খুলনার দৌলতপুরে কৃষি ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হয় তার সময়ে। পাট চাষিদের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ১৯৩৮ সালে ‘পাট অধ্যাদেশ’ জারি করা হয়।

তিনি বলেন, শেরে বাংলা বলতেন ‘নিজেকে বিলিয়ে দিতে হবে জাতির সহায়তায়। মহত্ত্ব নিয়ে অনাসক্ত হয়ে ব্যক্তি সত্তার স্বকীয়তা ভুলতে হবে; লুপ্ত করতে হবে। জাতির স্বার্থ হবে ব্যক্তির স্বার্থ। জাতির কল্যাণেই ব্যক্তির কল্যাণ।’ আমরা যদি মহান নেতার এই উপদেশ মনে-প্রাণে পালন করি, তাহলেই দেশ ও জাতি উপকৃত হবে এবং তার প্রতি জানানো হবে অকৃত্রিম শ্রদ্ধা ও গভীর ভালোবাসা।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, ঢাকা মহানগর সভাপতি মো. শহীদুননবী ডাবলু, সহ-সভাপতি মো. সোহেল, যুব ন্যাপ সমন্বয়কারী বাহাদুর শামিম আহমেদ পিন্টু প্রমুখ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ