fbpx
 

দূর্যোগে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিরোধে ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান বাস‌দের

Pub: শুক্রবার, মার্চ ২০, ২০২০ ৬:৩১ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

করোনার আতংকে এখন জনজীবন আতংকিত। এর সুযোগে এক শ্রেণির মুনাফালোভী ব্যবসায়ী ইতিমধ্যে চালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি করে জনজীবনে আরও সংকট নামিয়ে আনছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান। 

তিনি বলেছেন, অথচ সরকারের সেদিকে কোন ভ্রুক্ষেপ নাই।

শুক্রবার (২০ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাসদ আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

খালেকুজ্জামান বলেন, বাংলাদেশ নদী ও পানির দেশ। পানির প্রবাহ বন্ধ হলে দেশের অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে মরুভূমিতে পরিণত হয়ে যাবে। ভারত তিস্তা নদীতে বাংলাদেশের উজানে গজল ডোবায় ব্যারেজ নির্মাণ করে তিস্তার পানি অনৈতিক ও একতরফাভাবে প্রত্যাহার করায় তিস্তা মরছে, উত্তরবঙ্গের ৯টি জেলার কৃষি হুমকির মুখে, ভু-গর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাচ্ছে ফলাফলে উত্তরবঙ্গ আজ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের মুখোমুখি। শুধু তিস্তা নয়, আন্তঃনদী সংযোগ প্রকল্পের নামে বাঁধের মালায় বাংলাদেশকে ঘিরে ফেললে তা বাংলাদেশের প্রাণ, প্রকৃতি, পরিবেশ ভয়ংকর ঝুঁকিতে ফেলবে। ইতিমধ্যে ফারাক্কা বাঁধের কারণে সুন্দরবন হুমকীর মুখে, দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে লবনাক্ততা এবং রাজশাহীসহ উত্তরাঞ্চলে মরুকরণ ঘটে চলছে। এতে প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে বাংলাদেশের।

তিনি বলেন, সরকারের নতজানু হয়ে থাকা নীতির কারণে বাংলাদেশ তার পানির ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পারছে না।  ভারতের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্বের গাল ভরা বুলির আড়ালে আমাদের পানির অধিকার যেন হারিয়ে না যায় সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

বাসদ আয়োজিত ২০-২২ মার্চ ঢাকা-তিস্তা ব্যারেজ মার্চ করে ভারতের একতরফাভাবে পানি প্রত্যহারের প্রতিবাদ, জনসচেতনতা সৃষ্টি ও সরকারের নতজানু নীতির প্রতিবাদ করার কর্মসূচি ছিল তা করোনার ভয়াবহতা, সংক্রমন ঝুঁকি বিবেচনা করে স্থগিত করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন নদী-পানি-জাতীয় স্বার্থ রক্ষা আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব নইম জাহাঙ্গীর, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড বজলুর রশিদ ফিরোজ, রাজেকুজ্জামান রতন, বাসদ ঢাকা নগর নেতা খালেকুজ্জামান লিপন প্রমুখ।

Hits: 20


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ