fbpx
 

৩০০ মামলার আসামী ইসহাকের ভাগ্য যখন এখনও অন্ধকার কারাগার !!

Pub: সোমবার, জুলাই ১, ২০১৯ ১১:৫৮ অপরাহ্ণ   |   Upd: সোমবার, জুলাই ১, ২০১৯ ১১:৫৮ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাজনীতির আঁধার পেরিয়ে ভোরের সূর্যের আলো দেখতে হলে, সাদাকে সাদা কিংবা কালোকে কালো বলতেই হবে, নতুবা এই আঁধার গভীর থেকে গভীরতর হলেও ভোরের দেখা পাওয়া হবে দুস্কর। ইসহাক সরকারের নামে ৩০০টি মামলার যে রেকর্ড হয়েছে, তার একটি মামলাও ইসহাকের সন্ত্রাসী কিংবা চাঁদাবাজী কর্মকান্ডের জন্য নয়।বরং স্বল্প বয়স থেকেই এক জিযাউর রহমানের প্রেমে অন্ধ হয়ে যাওয়ার কারনেই আজ তার এই করুন পরিনতি।

তাহলে তার এই বিশাল ত্যাগের মূল্য পাওয়ার অধিকার কি তার নেই ? এই অধিকার তো ইসহাক ছোট বেলা থেকেই মাসের পর মাস কিংবা বছরের পর বছর ধরে অন্যায়ের করুন কারাবরন, কঠিন জুলুম, নির্মম পুলিশী নির্যাতন, প্রতিপক্ষের নিষ্ঠুর হামলা, সর্বোপরী তার প্রিয় ছাত্রদলের অগ্রযাত্রার জন্য তার সঞ্চয়কৃত বিশাল অর্থের লাগামহীন ব্যায়ের মাধ্যমেই অর্জন করেছে।

ইসহাকের ৩০০টি মামলা কি তার ব্যক্তিগত অপরাধের জন্য ? নাকি তার প্রিয় সংগঠন ছাত্রদলের জন্য ? তৃণমূল থেকে উঠে এসে ঢাকার রাজনীতির বুকে জিয়াউর রহমানের আদর্শের ঝান্ডা তুলে ধরতে জীবনের সব কিছু যে হাসি মুখে হারাতে পারে, তাকে তার প্রাপ্য সম্মান না দেওয়ার বিষয়টি, বোধ করি কোন রাজনৈতিক শিষ্টাচার কিংবা নিয়মের মধ্যেই পরিগনিত হয় না।

ইসহাকের মত এমন অন্যায়ের বিরুদ্ধে সাহসী হয়ে লড়াই করা একটি জিয়া পাগল ছেলে, অতীতে মাহবুবুল হক বাবলু, সানাউল হক নীরু, ইলিয়াস আলী, সজল, পিন্টু, সগীর প্রমূখ কিংবা বর্তমানে হাবিব উন নবী খান সোহেল, শফিউল বারী বাবু, সালাউদ্দিন টুকু, আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল প্রমূখদের ছাড়া আর কতজন থাকতে পারে ?

রাজনীতির পাশা খেলা রাজনীতিরই অংশ, এই কথা সত্য বটে, কিন্তু দল প্রেমিক এবং জিয়া প্রেমিকদের বাদ দিয়ে কারো কারো স্বীয় রাজনীতি চরিতার্থের করুন রাজনীতির পাশার খেলার বাস্তবতার ভয়াবহ ইতিহাস আমার মত আজ অনেকেই জানে।যে নিষ্ঠুর রাজনীতির পাশা খেলায় আজ এক সময়ের দেশ সেরা ছাত্র সংগঠন ছাত্রদল অনেকটা ছাত্র রাজনীতির হিমাগারেই বন্দী।

সুতরাং এবার যেন ইসহাক সরকার কিংবা ইসহাকের মত আরো যারা ছাত্রদলের রাজনীতির জন্য বিশাল ত্যাগ, শ্রম দিয়েছে এবং নির্যাতন সহ্য করেছে তাদের সবার প্রতি যেন সম্মান এবং তাদের প্রাপ্য রাজনৈতিক অধিকার দেওয়া হয়, নতুবা ছাত্রদলের রাজনীতির জ্বলন্ত বাতি ভবিষ্যতে প্রতিপক্ষের রাজনীতির স্বল্প বাতাসেও নিভে যেতে পারে।

ইসহাকের মত যে তরুন তার তারুন্যের সব বিসর্জন দিতে পারে তার প্রিয় সংগঠন ছাত্রদলের জন্য, যে সন্তান তার স্বীয় মায়ের বুক খালি করে রাজনৈতিক জননী বেগম খালেদা জিয়ার বুকে মাথা রেখে মৃত্যুকে হাসি মুখে মেনে নেওয়ার প্রস্তুতি নিতে পারে, যে অনুজ তার রাজনৈতিক অভিভাবক শ্রদ্ধেয় বড় ভাই জনাব তারেক রহমানের রাজনীতির সফলতার অধিকার নিশ্চিত করতে নিজ সহোদর ভাইয়ের কষ্টকর কারাবরন হাসি মুখে মেনে নিতে পারে, সেই তরুনের কথা চিন্তা করা বিএনপি’র জন্য আজ রাজনৈতিক ভাবেই ফরজ।

সুতরাং বর্তমান ছাত্রদলের নতুন কমিটির বিষয়ে ইসহাকের সরকারের মতামত গ্রহন আজ দুই ভাবেই তার অর্জিত অধিকার, প্রথমটি হলো কিশোর বয়স থেকেই তার প্রিয় ছাত্রদলের জন্য অন্ধকার জেলের করুন পরিনতি ভোগ করা ইসহাক সরকার আজও তার প্রিয় ছাত্রদলের জন্যই বিশাল ত্যাগের মধ্য দিয়ে অন্ধকার কারাগারে বন্দী, দ্বিতীয়টি হলো তার সাংগঠনিক অধিকার, কারন সে ছিল সদ্য বিলুপ্ত ছাত্রদলের কমিটির সফল সাংগঠনিক সম্পাদক।

সারা দেশে ইসহাকের যে পরিমান শুভাকাংখি এবং সহযোদ্ধা রয়েছে, তার সমপরিমান বর্তমান কোন ছা্ত্রনেতাদের আছে বলে আমার জানা নেই। সুতরাং ইসহাক সরকার যদি তার প্রাপ্য অধিকার থেকে রাজনীতির নিষ্ঠুর খেলায় বঞ্চিত হয়, তাহলে সারা দেশে প্রকৃত জিয়াবাদীদের হৃদয়ে রক্তক্ষরন হবে, যার শতভাগ প্রভাব পড়বে ছাত্রদলের নতুন কমিটি এবং ভবিষ্যত বিএনপি’র রাজনীতির উপর।

ইসহাকের ভিতর শহীদ জিয়াউর রহমানের রাজনৈতিক আদর্শের অনেক কিছুই বিদ্যামান, সততা, দল প্রেম, দেশ প্রেম, কর্মীদের প্রতি মমত্ব, অগ্রজদের প্রতি সম্মান, সাহস, সাংগঠনিক ক্ষমতা, নেতৃত্বের অসাধারন গুনাবলী এবং জন সাধারনের সাথে খুব সহজে মিশের যাবার মত অসাধারন ক্ষমতা।

সুতরাং জিয়াউর রহমানের প্রকৃত রাজনৈতিক সৈনিক ইসহাক সরকার বিএনপি’র ভবিষ্যত রাজনীতির সফলতায় শ্রদ্ধেয় তারেক রহমানের একজন সফল সহযোদ্ধা হিসেবেই যে কার্যকর হবে, তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।

তাই কোন ব্যক্তি বিশেষের বিশেষ স্বার্থের রাজনীতির বলী পাঠা ইসহাকরা না হয়ে যেন, ভবিষ্যতে শ্রদ্ধেয় তারেক রহমানের রাজনৈতিক সাহসী সফল যোদ্ধা হয়ে রাজনীতিতে প্রাপ্য সম্মান নিয়ে টিকে থাকতে পারে, আজ একজন জিয়া প্রেমিক হয়ে সেই প্রত্যাশা করাই শতভাগ সমিচীন মনে করি।

দোয়া করি মহান আল্লাহ যেন, প্রিয় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, প্রিয় নেতা শ্রদ্ধেয় তারেক রহমান এবং তাঁদের সাহসী রাজনৈতিক যোদ্ধা ইসহাক সরকারকে সকল বিষয়ে মঙ্গল, কল্যান এবং সফলতা দান করেন। আমীন।

আরিফ রহমান আরিফ
সাবেক ছাত্রদলনেতা


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ