fbpx
 

সিলেট আসছেন ওবায়দুল কাদের: তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা

Pub: Wednesday, August 29, 2018 10:06 PM
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মো.এনামুল কবীর :: সিলেটে এই মুহুর্তে কিছুটা হলেও কোনঠাসা সরকারি দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। বিশেষ করে, সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সামান্য ব্যাবধানে পরাজয়ের পর সাংগঠনিক তৎপরতা নিয়ে উঠেছে নানা প্রশ্ন। ঐতিহ্যবাহী দলটির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ পরাজয়ের কারণ চিহ্নিত করতে গিয়ে সাংগঠনিক দুর্বলতাকে দায়ী করেছিলেন।

এদিকে সামনেই জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচন কমিশন ঘোষাণা দিয়েছে, কাংখিত এই নির্বাচন অনুষ্টিত হবে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে। এ অবস্থায় সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পরাজয়ের বেদনা নিয়ে সংসদ নির্বাচনে লড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন সিলেট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। তবে বহুল আলোচিত ‘সাংগঠনিক দুর্বলতা’ কাটিয়ে উঠার ব্যাপারে দলীয় হাইকমান্ড কি সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন, এনিয়ে তাদের কৌতুহল সীমাহীন। সংশ্লিষ্টদের ধারণা, দলীয় সাধারণ সম্পাদক আজ এ ব্যাপারে কোন ঘোষণা দিতে পারেন।

সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পরাজয়ের কারণ সম্পর্কে বলতে গিয়ে দলীয় সাধারণ সম্পাদক, সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী প্রকাশ্যেই দলের সাংগঠনিক দুর্বলতা নিয়ে বক্তব্য রেখেছিলেন। তার বক্তব্যের পর ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে। এমনকি দলটির কর্মী সমর্থকরাও এ নিয়ে চরম হতাশা প্রকাশ করেছেন। সচেতন নাগরিকদের পাশাপাশি সমালোচনায় মুখর তারাও। এমনই এক পরিস্থিতিতে আজ সিলেট আসছেন ওবায়দুল কাদের। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের এই সফর নিয়ে তাদের মধ্যে কৌতুহল বিরাজ করছে।

বিশেষ করে, সাংগঠনিক তৎপরতা বৃদ্ধিতে তিনি কি নির্দেশনা দিবেন বা কি কর্মসূচি ঘোষণা করবেন এ ব্যাপারে তাদের মধ্যে চলছে ব্যাপক আলোচনা। কেউ কেউ ধারণা করছেন, এই সফরেই হয়ত দলটির সিলেট জেলা ও মহানগর কমিটি ভেঙে দেওয়ার ঘোষণা দিতে পারেন দলীয় সাধারণ সম্পাদক। তবে স্থানীয় দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ বলছেন, কেবলমাত্র শোক সভায় যোগদান করতেই তিনি সিলেট আসছেন। অন্যকোন কর্মসূচি সম্পর্কে তারা জানেন না। দলটির ত্যাগী এবং তৃণমূল নেতৃবৃন্দের ধারণা, যেহেতু ডিসেম্বরেই জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, সেহেতু সিলেট আওয়ামী লীগের কমিটি নিয়ে নতুন কোন ঘোষণা আসতে পারে। কারণ, সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে শক্ত চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে ক্ষমতসীন দলটিকে। আর সিলেটে সেই চ্যালেঞ্জ জিততে হলে নতুন কমিটির বিকল্প নেই। বিশেষ করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পর এই বাস্তবতা এখন আর অস্বীকার করার কোন উপায় নেই।

তৃণমূল নেতৃবৃন্দ মনে করছেন, বর্তমান নেতৃত্ব সাংগঠনিক দুর্বলতাকে যতই গতানুগতিক বলুন না কেন, এত এত উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের পরও সিটি নির্বাচনে কামরানের পরাজয় দলীয় অনৈক্যের বিষয়টিকেই সামনে নিয়ে এসেছে। তাছাড়া সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ৩ বছর মেয়াদী কমিটি ইতিমধ্যে প্রায় ৭ বছর অতিক্রম করে ফেলেছে। পুরানো এই কমিটিতে ত্যাগীরা বঞ্চিত ও সুবিধাভোগীদের ঠাঁই পাওয়া নিয়ে আলোচনা সমালোচনাও অনেক পুরানো। এই বিষয়গুলো বিবেচনা করে নেতাকর্মীরা মনে করছেন, সাধারণ কর্মী সমর্থকদের উজ্জিবীত করতে হয়ত কমিটি নিয়ে নতুন কোন ঘোষণা দিতে পারেন দলীয় সাধারণ সম্পাদক। ওবায়দুল কাদের বৃহস্পতিবার রাতে সিলেটেই থাকবেন। কেউ কেউ মনে করছেন, আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় অন্যকোন কর্মসূচির ঘোষণা না থাকলেও অনানুষ্ঠানিকভাবে হয়ত সেদিন রাতে এ ব্যাপারে স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠকে বসতে পারেন কাদের। দলীয় বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, তেমন একটি বৈঠকের সম্ভাবনা খুব বেশি। আর সেই বৈঠক থেকেই আসতে পারে কমিটি নিয়ে নতুন কোন সিদ্ধান্ত।

তবে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকদ্বয় সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপকালে জানিয়েছেন, আগস্ট শোকের মাস। সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী এবং দলীয় সাধারণ সম্পাদক সিলেট আসছেন শোক সভায় যোগ দিতে। সেখানে কমিটি নিয়ে কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কি-না, বা কমিটি ভাঙা-গড়ার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্তের কথা তারা জানেন না।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় সিলেটের ঐতিহাসিক আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত শোক সভায় যোগদান করবেন ওবায়দুল কাদের। তিনি সিলেটেই রাত্রিযাপন করে শুক্রবার সকালে ঢাকায় যাবেন। তার সফরসঙ্গী হিসাবে যারা থাকছেন, তারা হলেন দলের যুগ্ম-সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, জাহাঙ্গির কবির নানক, এনামুল হক শামীম, সিলেটের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, দফতর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

শীর্ষ খবর/এক


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ