fbpx
 

এইবার যদি নৌকা ক্ষমতায় না যায়, তাইলে খবর আছে’

Pub: বুধবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৮ ১১:৩১ অপরাহ্ণ   |   Upd: বুধবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৮ ১১:৩১ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মৌলভীবাজার:
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমান বলেছেন, ‘এইবার যদি নৌকা ক্ষমতায় না যায়, তাইলে আমাদের খবর আছে’।

‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে কথা বলেছেন, দেশে গৃহযুদ্ধ হবে। দেশে মারামারি হানাহানি হবে। ঘর থেকে মানুষের বেরুনোর কোনো নিরাপত্তা থাকবে না। সেই কারণেই আমি বলছি, আসুন আমাদের অস্তিত্ব রক্ষার স্বার্থে নিজেদের সব ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে মিলেমিশে নৌকা প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্য কাজ করি’।

বুধবার দুপুরে ভানুগাছ বাজারস্থ আওয়ামী লীগ নেতা আছলম ইকবাল মিলনের বাসভবনে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কমলগঞ্জ উপজেলা শাখার বর্ধিত সভায় আগত সকল নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে এ আহবান জানান তিনি।

সভায় মৌলভীবাজার-৪ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত সংসদ সদস্য প্রার্থী উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ বলেন, ‘কমলগঞ্জে আজকে অত্যন্ত আনন্দ লাগছে। আমরা সকলে ভেদাভেদ মতপার্থক্য ভুলে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ ঐকবদ্ধ’।

তিনি বলেন, ‘নৌকায় অতীতে যদি আমরা এক সেন্টারে বারো আনা ভোট পেয়ে থাকি, এইবার চৌদ্দ আনা বা পনের আনা ভোট পাবো। তাহলেই আমাদের উন্নয়নের মহাসড়কের যাত্রা আরো শক্তিশালী হবে’।

তিনি আরো বলেন, ‘চা বাগানের শ্রমিক ভাইয়েরা তারা চোখবুঝে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়। কিছু স্যংখ্যক লোক শুধু নির্বাচন আসলেই পাঁচ বছর পরে কালো টাকা নিয়া আর জিজ্ঞাস করে শহীদ সাব কী করল, নৌকা কী করল। আমার প্রশ্ন হলো যে লোক এই প্রশ্ন করে তাকে জিজ্ঞেস করবেন, রাতে যে আলোর নীচে দাঁড়িয়ে কথা বলেন সেটাই তো শেখ হাসিনার অবদান, শহীদ সাবের অবদান, নৌকার অবদান। দিনের বেলা যদি প্রশ্ন করে শহীদ সাবকে কেন ভোট দেবেন তাহলে বলবেন আপনি যে রাস্তায় দাঁড়িয়ে কথা বলেন, আপনার গাড়ী যে রাস্তায় চাকা ঘুরতেছে, এই পাকা রাস্তাটা যে পাইলেন। এসবই শেখ হাসিনার অবদান’।

তিনি বলেন, ‘বাইক্কা বিলে যেভাবে শীত আসলে অতিথি পাখি আসে সেই একইভাবে ইলেকশন আসলে কালো টাকার মালিকরা নির্বাচন করতে আসে’।

কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম, মোসাদ্দেক মানিকের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাবেক চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ ড. মো: আব্দুস শহীদ এমপি।

বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ সদস্য কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমান।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ নুরুল ইসলাম, এএসএম আজাদুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সিদ্দেক আলী, আছলম ইকবাল মিলন, অধ্যাপক হারুনুর রশীদ ভূঞা, আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, কমলগঞ্জ সদর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আব্দুল হান্নান, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালিব তরফদার, পতনঊষার ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার তওফিক আহমেদ বাবু, শমশেরনগর ইউপি চেয়ারম্যান জুয়েল আহমেদ, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী মুন্না রায়, তফাদার রিজুয়ানা ইয়াসমীন সুমী প্রমুখ।

সভায় জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিকলীগ, কৃষকলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ