ত্রুটিপূর্ণ ভোটার তালিকা দিয়ে সুনামগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির নির্বাচন না করার দাবি

Pub: শনিবার, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৯ ৪:২৯ অপরাহ্ণ   |   Upd: শনিবার, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৯ ৪:৩০ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একে কুদরত পাশা, সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি::
১১ ফেব্রুয়ারি সোমবার সুনামগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির এলাকা পরিচালক নির্বাচনে অনিয়ম দুর্নীতি স্বজনপ্রীতির আশ্রয় গ্রহন পূর্বক প্রহসনের নির্বাচন অনুষ্ঠানের অপচেষ্টা এবং তথাকথিত নির্বাচনী তফসিল বাতিল পূর্বক নতুন তফসীল ঘোষনার দাবীতে মাননীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী ম›ন্ত্রী মহোদয়ের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন সুনামগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির এলাকা পরিচালক নির্বাচনে ০২ নং এলাকা (ছাতক) থেকে পরিচালক পদে বৈদ্যুতিক বাল্ব মার্কায় পরিচালক প্রার্থী পীরমোহাম্মদ আলী মিলন। শনিবার দুপুরে পানসী রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে তিনি,তথাকথিত নির্বাচনী তফসিল বাতিল এবং ছবি যুক্ত সদস্য সনদ প্রনয়ন পূর্বক নতুন তফসিলের অধীনে নিরপেক্ষ গ্রহণ যোগ্য নির্বাচন অনুষ্টানের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এক জন প্রার্থী হিসেবে মাননীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী মন্ত্রী মহোদয় সহ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কঠোর হস্থক্ষেপ কামনা করেন। অন্যথায় মহামান্য হাইকোর্টের আশ্রয় গ্রহণ পূর্বক আইনগত প্রতিকারচাওয়ার হুমকি দেন। প্রতিপক্ষকে উদ্দেশ্যমূলক ও বে-আইনীভাবে ছবিযুক্ত সদস্য সনদ ছাড়াই ত্রুটিপূর্ণ সদস্য সনদ সরবরাহের মাধ্যমে সহযোগিতা দিয়ে বিতর্কিত নির্বাচন অনুষ্টানের সকল অপচেষ্টার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।তিনি অভিযোগ করেন একটি মহল আমাকে পরাজিত করার জন্য আমার এলাকার ভোটারদেন ছবি ছাড়া সনদ বিলি করেছে, অন্যদিকে আমার প্রতিপক্ষের সমর্থিত ভোটারদের ছবিযুক্ত সনদ সরবরাহ করা হয়েছে। ছবিযুক্ত সদস্য সনদ ছাড়া ১১ ফেব্রুয়ারির বিতর্কিত নির্বাচন বাতিল না হলে তিনি তথাকথিত প্রহসনমূলক নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, নির্বাচনে একজন প্রার্থী হিসেবে সম্মানিত ভোটারদের কাছে গিয়ে এবং অফিস হতে ভোটার তালিকা সংগ্রহ করে জানতে পারি সমিতির প্রায় ২৫ হাজার ভোটারের মধ্যে অর্ধৈক ভোটারের ছবিযুক্ত সদস্য সার্টিফিকেট নেই। ৭৫১৯-২ নং সদস্য জনৈক নুরুল আমিন নির্বাচন কমিশনের কাছে তার ছবিযুক্ত সদস্য সনদ (ভোটার আইডি) এখনোও পাননি বলে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। আমি অনুসন্ধানে জানতে পারি শুধু নুরুল আমিন একাই নন সমিতির প্রায় অর্ধেক ভোটাররাই (সদস্য) ছবিযুক্ত সদস্য সনদ এখনো পাননি। ফলে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যমূলক ত্রুটিপূর্ণ ভোটার তালিকা দিয়ে এক প্রহসনের নির্বাচন অুনষ্টানের জন্য সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির নির্বাচন কমিশন উঠেপড়ে লেগেছে।
নুরুল আমিন এ ব্যাপারে ০৪/০২/২০১৯ ইং তারিখে সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতাভূক্ত রির্টানিং অফিসার ও নির্বাচন কমিশন প্রধান মো: আমিনুর রহমান খান, উপ-পরিচালক (অর্থ), নিয়ন্ত্রক (অর্থ হিসাব) এর দপ্তর, বাংলাদেশে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড, ঢাকা মহোদয়ের কাছে লিখিত অভিযোগ দাখিল করার পরও নির্বাচন কমিশন এখন পর্যন্ত সমিতির সকল সদস্যদের ছবিযুক্ত সদস্য সনদ সরবরাহ করেনি ফলে এই নির্বাচন কমিশনের ১৩ নং অনুচ্ছেদের বিধান প্রতিফলিত হয়নি। কমিশনের প্রকাশিত জ্ঞাতব্য বিজ্ঞপ্তির ১৩ নং অনুচ্ছেদে সুস্পষ্ট উল্লেখ করা হয়েছে ‘ভোটার তালিকায় নাম থাকিলেও সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি কর্তৃক প্রদত্ত ছবি যুক্ত সদস্য সনদ সঙ্গে না আনিলে ভোট প্রদান করিতে পারিবেন না’। তাই অধিকাংশ ভোটারদের সনদে ছবি না থাকায় যেমন ভোটাররা ভোট দিতে বিপাকে পরবেন, তেমনি আমার সমর্থক হাজার হাজার ভোটার বা সদস্যরাও তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন না। এসময় তার সাথে ভোটাররা উপস্থিত ছিলেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ

সংবাদটি পড়া হয়েছে 1041 বার