fbpx
 

হবিগঞ্জে কুশিয়ারায় নদীর ভাঙ্গনরোধে চলমান প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ

Pub: বুধবার, জুলাই ১০, ২০১৯ ৫:২১ অপরাহ্ণ
 
 
 

শীর্ষ খবর ডটকম

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ছনি চৌধুরী,হবিগঞ্জ থেকে ॥
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার কুশিয়ারা এলাকায় নদী ভাঁঙ্গনরোধে গৃহীত বিশেষ প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যক্রম দূর্নীতির অভিযোগ দুদক ও সংসদীয় কমিটির কাছে প্রেরন করা হয়েছে। উক্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখছে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটি। এনিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ খতিয়ে দেখতে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় একটি আলাদা কমিটি করেছে।

অভিযোগটি খতিয়ে দেখতে জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী কুশিয়ারা ডাইক এলাকা সরজমিনে পরিদর্শন করে গেছেন। এদিকে কুশিয়ারা ডাইকের কাজের দুর্নীতির তদন্তে ঢাকা থেকে দুদকের একটি টিম আসারও কথা রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সর্বত্র তোলপাড় হচ্ছে। কুশিয়ারা ডাইকের প্রায় আড়াই কোটি টাকার প্রকল্পে নয়ছয় হয়েছে এমন আলোচনা সমালোচনা রাজনৈতিক অঙ্গনে চলছে।
সম্প্রতি পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক সম্প্রতি কুশিয়ারা ডাইক ও ভঙ্গন এলাকা পরির্দশন করেন। তার নির্দেশনায় বর্ষা মৌসুম শুরু পূর্বেই পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় কুশিয়ারা নদীর ভাঙ্গনরোধে দুই কোটি ৩৮ লক্ষ টাকা প্রদান করেন। ঐ কাজের কার্যাদেশ পায় মৌলভীবাজারের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ফাহাদ এন্টার প্রাইজ।
ঐ এন্টারপ্রাইজের সাথে স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতারা যুক্ত হয়ে দ্রুত গতিতে কাজ শুরু করে। নদীর ভাঙ্গনরোধ ও বাঁধ সুরক্ষায় নি¤œ মানের কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগ উঠে। কাজে ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে বলে নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের নাম দিয়ে কে বা কারা দুদক ও পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির কাছে অভিযোগ প্রেরণ করে।

এরই প্রেক্ষিতে গত ৩জুন বুধবার সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গেছেন জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী । এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্য শাহনওয়াজ মিলাদ গাজীসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। কুশিয়ারা নদীর চরের দখল ও বালু উত্তোলনে একটি চক্র মরিয়া হয়ে উঠেছে। এনিয়ে নিরব রয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড।

এব্যাপারে জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী মুঠোফোনে বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানের নাম দিয়ে আমাদের কাছে একটি অভিযোগ আসে। আমরা তারই তদন্ত করছি, আমি সরজমিনে বিষয়টি দেখেছি, সব কিছু খতিয়ে দেখা হচ্ছে, তবে কুশিরায়ার ডাইক রক্ষায় এবং বিবিয়ানা গ্যাসফিল্ডকে বাঁচাতে আমরা ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে আরেকটি প্রকল্প হাতে নিতেছি । বর্তমান কাজ মাত্র দুই কোটি ৩৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে হয়েছে। বিষয়টির অভিযোগ দুদকের কাছে দেয়া ঠিক হয়নি। এখনো কাজ চলমান আছে তাই অনিয়ম হয়েছে বলা যাবে না। কাজ শেষ হবার আগে এমন মন্তব্য সঠিক নয়।

ওদিকে, স্থানীয় লোকজনের দাবি, নদী ভাঁঙ্গনরোধে নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ না হলে কোন প্রজেক্টই কার্যকর হবেনা। এনিয়ে উপজেলা প্রশাসনের নিরব ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার নদী ভাঙ্গন কবলিত দীঘলবাক এলাকার উন্নয়নে ২ কোটি ৩৮ লাখ টাকার একটি বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ করে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়।

প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করে প্রজেক্টের অনুমোদন দেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এমপি। ৮১ হাজার গানি ব্যাগ ও ৪৩ হাজার জিও ব্যাগ পালানোর প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করছে ফাহাদ এন্টারপ্রাইজ।

এনিয়ে হবিগঞ্জ আইনশৃঙ্খলা কমিটির বৈঠকে আলোচনার সূত্রপাত করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুলী সেলিম।

এব্যাপারে হবিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে দুর্নীতি করে পার পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই,দুর্নীতি হলে অবশ্যই দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভিযোগ দেয়ার ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুলী সেলিম বলেন, আমি কোন অভিযোগ করি নাই কে বা কারা আমার নাম ব্যবহার করেছে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হউক।

কুশিয়ারা এলাকায় ক্ষমতাসীন দলের ছত্রছায়ায় অবাধে বালু উত্তোলনের ফলে প্রতি বছর প্রায় ১৫-২০ মিটার জনপদ নদী গর্ভে বিলীন হয়। দীঘলবাঁক ইউনিয়নের দীঘলবাক গ্রাম ইতিমধ্যেই নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে।

সার্বিক বিষয়ে হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী এম এল সৈকত বলেন, মন্ত্রণালয়ের বিশেষ নির্দেশনায় প্রকল্প কাজে সার্বক্ষণিক নজরদারী করেছি। এখানে দুর্নীতির সুযোগ নেই। নদী ভাঁঙ্গনরোধে গৃহীত ওই প্রকল্প বাস্তবায়নে নি¤œমানের কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জাতীয় সংসদের হুইফ সামশুল হক চৌধুরী।

কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ফাহাদ এন্টারপ্রাইজের পক্ষে কার্যক্রম পরিচালনা করছেন দীঘলবাক উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আজিজুল হক শিবলী , তিনি দূর্নীতির অভিযোগ অস্বীকার করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Print

শীর্ষ খবর/আ আ